মানবতার কবি নজরুল কে নিবেদিত কবিতা

ফারজানা নাজ শম্পা
ফারজানা নাজ শম্পা 212 Views

কবি নজরুল
পরিবর্তনের ডাকে
ছিলে উচ্চকিত বারবার।
বিদ্রোহী সত্তারূপে
প্রকান্ড প্লাবনের দুর্বার স্রোত
বারবার ভাসিয়ে দিয়েছিলে
মিথ্যাচার ক্লেদাক্ত কপটতার মুখোশকৃত
আর জঞ্জাল ভরপুর সমাজের
শোষিতের নিযাতনে অবগুন্ঠন কে।
নবজাগরণের উজ্জ্বল
অবিনাশীরূপ নিয়ে
তুমি এসেছিলে কবি।
নুতন সূর্যোদয়ের মতো
অনাচারের মলিনতার পদতলে
পিষ্টপ্রায় নির্যাতিতের
দৃপ্ত অভয় আশ্রয় হলো
তোমার আগমনে।
ভগ্নপ্রায় সন্ত্রস্ত মানব
সভ্যতার জাগরণে
সুর তুলেছিল তোমার
অজেয় অগ্নিবীণা।
তোমার বাণী তে ধ্বনিত হয়েছে
বারবার দৃপ্ত প্রত্যয়ে
সাম্য আর সহনশীলতার
অমিয় বার্তার বহনের প্রচন্ড প্রয়াস।
তোমার বিষের বাঁশী তে
উন্মাতাল উজ্জীবিত এক আহ্বানের সুর বেজেছিল
আশা আর ভালবাসার মূৰ্চ্ছনায়।
কবি তোমার অক্ষয় অমর স্বরূপে
জয়উৎসবে জয়ভেরী বাজবে অহর্নিশ।
সম্প্রীতির আর মানবতার
আনন্দলোক পরিণত হবে আমাদের ভুবনগ্রাম

জানো কবি?
তোমার বসন্তের আহ্বানে
বাগিচার সব বুলবুলি জাগবেই
ফুল সখা কে ডাক দেবে
সুরভিত ভালবাসার ভৈরবী তালে।
চিরঞ্জীব চিরদিনের কবি
এইভাবে সীমাহীন মহাকালের পথে
তোমাকে অনুভব করবে সবাই
সব সংস্কার ও বৈষম্য বিরোধী মানুষ রা
ধূমকেতুর মতো
কিংবদন্তির উজ্জ্বলতায়।

Share This Article
জন্মস্থান চট্টগ্রাম শহরে ১৯ ই ডিসেম্বর ১৯৭৬ সালে। অনুবাদক, লেখক ও গবেষক ফারজানা নাজ শম্পা কানাডার হ্যালিফ্যাক্সে সপরিবারে বসবাসরত। লেখালিখির সাথে সম্পৃক্ত আছেন নব্বই দশকের শেষ থেকেই। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগ থেকে মাস্টার্স ও নরওয়ের বার্গেন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নোরাড ফেলোশীপ নিয়ে ‘জেন্ডার ও উন্নয়ন’ বিষয়ে এম.ফিল. ডিগ্রী সমাপ্ত করেন। কর্মজীবন শুরু হয় বাংলাদেশের ইরেজি দৈনিক “দি ইন্ডিপেন্ডেন্ট”এর একজন ফিচার লেখক ও সাংবাদিক হিসেবে। পরবর্তীতে নরওয়েতে উচ্চশিক্ষা শেষ করে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উইমেন ও জেন্ডার স্টাডিজ বিভাগে নেদারল্যান্ডস’এর সহায়তাপুস্ট একটি প্রজেক্টে কিছুদিন কর্মরত ছিলেন। তাঁর প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা দুটি: প্রথমটি ‘জেন্ডার শব্দকোষ’ (বাংলা ভাষায়) আর দ্বিতীয়টি নারীর ক্ষমতায়ন (ইংরেজি ভাষায়) বিষয়ে, যা কিনা গ্রামীণ ব্যাংকের কার্যক্রমের ফলে নারীর ক্ষমতায়নে এর প্রভাব নিয়ে একটি মাঠ পর্যায়ের গবেষণামূলক রচনা। প্রথমটি ঢাকা ও দ্বিতীয়টি জার্মানী থেকে প্রকাশিত।